June 22, 2024, 4:22 pm

সংবাদ শিরোনামঃঃ
রাজধানীর অধিকাংশ পশুর হাট ফাঁকা কুমিল্লার তিতাসে পাতিলের ভিতরে জীবিত নবজাতক উদ্ধার-কত নিষ্ঠুর তার মা বাবা কল্যাণ পার্টির প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সনদ পেলেন লায়ন মনোয়ারা বেগম  মরহুম মাওঃ রশিদ আহাম্মদ ও হাজেরার রশিদ স্মরণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের বাগেরহাট জেলা-কমিটি অনুমোদন প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আসাফো”র প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত  রাজধানীতে ফ্রেস পানি ও ওরস্যালাইন বিতরণ করেন বিএসআরএস কুষ্টিয়া দৌলতপুরে সাংবাদিকের উপর হামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামী গ্রেফতার সবার জন্য ইফতার ব্যানার লাগিয়ে মাসজুড়ে ইফতার বিতরণ করে আসছে সংগঠন পাশে আছি
পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ : বাড়তে শুরু করেছে দাম

পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ : বাড়তে শুরু করেছে দাম

ডিজিটাল জনবার্তা : পেঁয়াজের আইপি (ইমপোর্ট পারমিটের) মেয়াদ শেষ হওয়ায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। ফলে বাজারে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। দুইদিনের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৮ থেকে ১০ টাকা কেজিতে।
ব্যবসায়ীরা জানান, আমদানি বন্ধ হওয়ায় এবং রমজান উপলক্ষে পেঁয়াজের চাহিদা থাকায় পণ্যটির দাম বাড়ছে। বর্তমান আমাদের বেশি দামে কিনতে হচ্ছে তাই বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। এদিকে আমদানিকারকরা বলছেন,রমজানে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক রাখতে নতুন করে আইপি অনুমোদন দিতে হবে। অপরদিকে আগের আমদানি করা পেঁয়াজ মজুদ করে দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস উপজেলা প্রশাসনের।
আজ শুক্রবার (১৭ই মার্চ) হিলি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের অজুহাতে বাড়তে শুরু করেছে দাম।দুই দিনের ব্যবধানে প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ৮ থেকে ১০ টাকা। দুই দিন আগে যে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছিল ২০ থেকে ২২ টাকা কেজি, সেই পেঁয়াজ আজকে বিক্রি হচ্ছে ২৬ থেকে ২৮ টাকা কেজি দরে। এতে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ ক্রেতারা।
আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর রশিদ হারুন বলেন, দেশের কৃষকের উৎপাদিত পেঁয়াজের নায্যমূল্য ঠিক রাখতে নতুন করে পেঁয়াজ আমদানিতে আইপি বা ইমপোর্ট পারমিট দিচ্ছে না বাংলাদেশ সরকার। ফলে গেলো ১৫ই মার্চ থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে । রমজানের আগে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হওয়ায় দাম বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে বাজারে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক রাখতে নতুন করে পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি চায় আমদানিকারকরা, আমদানি স্বাভাবিক থাকলে রমজানে দাম বাড়বে না বলেও জানান তারা।
পেঁয়াজ চাষি রহিম বলেন, পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হওয়ায় খুশি আমরা।দেশের পেঁয়াজ চাষীরা, তাদের আশা সরকারের এমন সিদ্ধান্তে দেশে উৎপাদিত পেঁয়াজের ভালো দাম পাবে কৃষকেরা।
হিলি বাজারে পেঁয়াজ বিক্রেতা শাহাবুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে হিলি বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৬ টাকা থেকে ২৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আমদানি বন্ধ এবং চাহিদা থাকার কারনে বেড়েছে দাম।
হিলি বাজারে পেঁয়াজ ক্রেতা করিম বলেন, আমি দুই দিন আগে পেঁয়াজ কিনলাম ১০০ থেকে ১১০ টাকা ধারা। আর আজকে কিনলাম ১৫০ টাকা ধারা। দুই দিনের ব্যবধানে এত টাকা বৃদ্ধি হলে আমরা চলবো কেমন করে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নুর-এ আলম বলেন, আগের আমদানিকৃত পেঁয়াজ মজুদ করে কোন ব্যবসায়ী যাতে দেশে কৃত্রিম সংকট তৈরি না করে সেজন্য নিয়মিত অভিযান চালানো হবে।
হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চলতি বছরের গেলো জানুয়ারি থেকে ১৫ই মার্চ পর্যন্ত ভারতীয় ৫শ ৫৫ ট্রাকে ১৬ হাজার ১৬৭ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের আইকনে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2023 digitaljonobarta.com
Desing & Developed BY Gausul Azam IT